Templates by BIGtheme NET
sadia

অভিনয়ে মডেল সাদিয়া

স্কুল জীবনে যেকোন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানেই সাদিয়া মজুমদারের স্বরব উপস্থিতি সবাইকে উল্লাসিত করতো। তাই বলে এই মেয়ে চলচ্চিত্রে নাম লেখাবে তা কেউ ভাবতেও পারেনি। কিন্তু প্রতিভা যার মধ্যে রয়েছে, তাকে কি আটকে রাখা যায়। তাই রাশিদ পলাশ পরিচালিত ‘নাইওর’ ছবিরে মাধ্যমেই চলচ্চিত্র অঙ্গনে পা রাখতে চলেছেন সাদিয়া।

সাদিয়া বেড়ে উঠেছেন গোপালগঞ্জে। কিন্তু মফস্বলে বাস করেও থিয়েটারের সঙ্গে নিজেকে জড়িয়ে ফেলেন। অভিনয়ের কলা কৌশল শিখতে শিখতেই একদিন রাজধানীতে এসে উপস্থিত।

যান্ত্রিক জীবনের মাঝেও নিজের ভেতর সুপ্ত স্বপ্নটাকে বাস্তব রূপ দানে চেষ্টা করছিলেন। কিন্তু ব্যাটে বলে মিল ছিলো না বলে এতদিন শুরু করতে পারেননি। এর মধ্যেই একদিন বন্ধু পলাশ এসে একটি ছবি নির্মাণ করার ইচ্ছার কথা ব্যক্ত করেন। আর সেখান থেকেই প্রথমবারের মতো চলচ্চিত্রে নাম লেখান তিনি। আগামী ১ মার্চ থেকে রাশিদ পলাশ অভিনীত ‘নাইওর’ ছবির চিত্রধারণের কাজ শুরু হচ্ছে।

এদিনই প্রথমবারের মতো ক্যামেরার সামনে দাঁড়াবেন সাদিয়া। ‘সেই স্কুল জীবন থেকে অভিনয় করছি, কিন্তু ক্যামেরার সামনে অভিনয় এবারই প্রথম। তাই কিছুটা ভয় আর উত্তেজনা এসে ভর করেছে মনে’ বললেন সাদিয়া। ‘নাইওর’ ছবিতে সাদিয়ার বিপরীতে থাকছেন শক্তিমান অভিনেতা আনিসুল হক মিলন। এ প্রসঙ্গে সাদিয়া বলেন, ‘প্রথম ছবিতেই মিলন ভাইয়ের মতো একজন বড় মাপের অভিনেতার সঙ্গে অভিনয় করার সুযোগ পেয়ে নিজেকে ভাগ্যবান মনে করছি। কারণ তার কাছ থেকে অনেক কিছুই শেখার রয়েছে।’

ছবিতে অভিনয় করতে হলে নাচ জানাটা জরুরি। এ বিষয়টি অনেক আগে থেকেই জানতেন সাদিয়া। এ কারণে স্কুল জীবন থেকেই বাসায় শিক্ষকের কাছে নাচ শিখেছেন। তবে ছবিতে অভিনয়ের জন্যে চুক্তিবদ্ধ হবার পর নাচটাকে বেশ গুরুত্বের সঙ্গেই দেখছেন সাদিয়া। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘নাইওরের জন্যে আবারো নাচের চর্চা শুরু করছি। অন্য দিকে অভিনয়ের তালিম নিচ্ছি মোমেনা চৌধুরীর কাছে।’

বাংলা ছবিতে অভিনয় করবেন, আর প্রেক্ষাগৃহে গিয়ে বাংলা ছবি দেখবেন না এটা ভাবতেও পারেন না সাদিয়া। এ বিষয়ে সাদিয়া জানান, শিগগিরিই সদ্য মুক্তিপ্রাপ্ত ছবিগুলো দেখতে প্রেক্ষাগৃহে ঢুঁ মারবেন তিনি। উদ্দেশ্য সেখান থেকে দর্শকদের চাওয়া পাওয়ার জায়গাটা উপলব্ধি করা।

সাদিয়ার স্বপ্নের নায়ক কে জানতে চাইলে, অনেকটা পাশ কেটে গিয়ে জানান, ‘আমার কাছে এখনকার সব নায়ককেই ভালো লাগে। তবে আরেফিন শুভর সঙ্গে অভিনয় করতে পারলে ভালো লাগতো।’ অভিনয়ে কাউকে অনুকরণ না করলেও, একালের মাহির অভিনয় তার ভালো লাগে। তাছাড়া প্রিয় নায়িকার তালিকায় প্রথমেই রয়েছে শাবনূরের নাম।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

teletalk

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful