Templates by BIGtheme NET
jessore-news-ten-taka-rice

যশোরে ‘১০ টাকার চাল’ নিয়ে অনিয়ম তদন্তে দুদক

যশোর : যশোরের শার্শা উপজেলার বাগআঁচড়া গ্রামের বাসিন্দা গোলে বিবি। স্বামী বাদশা মিয়া মারা গেছেন অনেক আগে। অভাবের সংসার। বাধ্য হয়ে বেছে নিয়েছেন ভিক্ষা বৃত্তি। একই গ্রামের বাসিন্দা বিধবা কদবানু অন্যের বাড়িতে কাজ করে কোনো মতে বেঁচে আছেন। আর রাশিদার নিজের কোনো জায়গা না থাকায় অন্যের জমির উপর টঙ ঘর তুলে বসবাস করেন।

এমন হতদরিদ্রদের কথা চিন্তা করে সরকার ১০ টাকা দরে চাল বিক্রি শুরু করেছে। কিন্তু এসব ভাগ্যহতরা ১০ টাকা দরের কার্ড পাননি। তার পরিবর্তে ওই গ্রামে কার্ড পেয়েছেন প্রবাসী মুক্তার হোসেন, প্রবাসী ছেলের পিতা দৌলত বিশ্বাস, কোটিপতি ব্যবসায়ী সুলতান গাজী, কবিরুল ইসলামরা।

চাল নিয়ে অনিয়মের ঘটনা ঘটেছে যশোরের সর্বত্র। এসব অনিয়মের বিরুদ্ধে তদন্তে নেমেছে যশোরের দুর্দীতি দমন কমিশন (দুদক)। সরকারের উচ্চ পর্যায়ের নির্দেশনা পেয়ে মঙ্গলবার (০১ নভেম্বর) তারা অনিয়ম তদন্তে আনুষ্ঠানিকভাবে মাঠে নেমেছে। যশোর সদর উপজেলার উপশহর ও নওয়াপাড়া ইউনিয়নে গিয়ে তালিকা ধরে ধরে খোঁজ নিচ্ছেন দুদক কর্মকর্তারা । একই সাথে জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রকের অফিসে ১০ টাকার চাল প্রাপ্তদের তালিকা চেয়ে পাঠানো হয়েছে।

দুদকের যশোর সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক জাহিদ হোসেন বলেন, ‘১০ টাকার চাল নিয়ে অনিয়মের তদন্তের নির্দেশনা এসেছে। আমি নিজে আজ মঙ্গলবার যশোর সদর উপজেলার উপশহর ইউনিয়নের একটি বস্তিতে গিয়েছি। তদন্তের জন্য খাদ্য নিয়ন্ত্রকের অফিসে তালিকা চেয়েছি। বৃহত্তর যশোরের (ঝিনাইদহ, নড়াইল, যশোর, মাগুরা) চার জেলার অনিয়মের বিরুদ্ধে তদন্ত করা হবে।’

সূত্র মতে, তালিকা তৈরির মতো ডিলারদের চাল বিক্রির স্বচ্ছতা নিয়েও রয়েছে প্রশ্ন। অনুমোদিত তালিকা থেকে গরীবদের বাদ দিয়ে নিজস্ব লোকদের কাছে চাল বিক্রির অভিযোগ আছে অনেক ডিলারের বিরুদ্ধে। গত ২০ অক্টোবর এমন অভিযোগ কেশবপুরের হাসানপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আহবায়ক আলাউদ্দিন মোড়লের ডিলারশিপ বাতিল করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শরীফ রায়হান কবীর। একই সাথে তিনি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে আলাউদ্দিন মোড়লের কাছ থেকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন। এর আগে গত ১১ অক্টোবর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কামরুল হাসান ওজনে কম দেওয়ার অভিযোগে মণিরামপুর সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম শাহিনের দোকানে অভিযান চালিয়ে ১০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন। পরে ১৭ অক্টোবর তার ডিলারশিপ বাতিল করা হয়।

দুদকের যশোর সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক জানান, তালিকা যাচাই-বাছাইয়ের মতো ডিলার নিয়োগ প্রক্রিয়া ও ওজনে কম দেওয়ার অভিযোগগুলোও তারা খতিয়ে দেখবেন। অভিযোগ প্রমাণিত হলে মামলা করার পাশাপাশি দুর্নীতিবাজদের গ্রেফতার করা হবে।

teletalk

ăn dặm kiểu NhậtResponsive WordPress Themenhà cấp 4 nông thônthời trang trẻ emgiày cao gótshop giày nữdownload wordpress pluginsmẫu biệt thự đẹpepichouseáo sơ mi nữhouse beautiful